খালেদা জিয়ার রায়ে সরকারের হাত নেই: হাছান মাহমুদ

আওয়ামীলীগ
Typography
  • Smaller Small Medium Big Bigger
  • Default Helvetica Segoe Georgia Times

খালেদা জিয়ার রায়ে সরকারের হাত নেই: হাছান মাহমুদ

অনলাইন ডেস্ক: আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক হাছান মাহমুদ বলেছেন, বিএনপি নেত্রী খালেদা জিয়ার রায়ে সরকারের হাত নেই। সরকারের হাত থাকলে আগের মেয়াদেই রায় হতো। ১০ বছর সুযোগ পেত না। মামলাটি আওয়ামী লীগ-বিএনপির বিষয় নয়, জনগণের প্রত্যাশিত রায়।


শুক্রবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবে বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটের আয়োজনে এক আলোচনা সভায় তিনি এ কথা বলেন।

হাছান মাহমুদ বলেন, বিএনপি নেত্রীর রায়ের মাধ্যমে আইনের শাসন প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। আইনে সবাই সমান সেটা প্রমাণিত হয়েছে। রায়কে কেন্দ্র করে রাস্তায় ও আদালতের ভেতরে বিএনপির আইনজীবী ও নেতারা যে তাণ্ডব চালিয়েছেন, সেটা আদালতের প্রতি বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখানোর সমান।
তিনি বলেন, ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠা করতে হলে অন্যায়ের প্রতিকার করতে হয়।

সংবাদ সম্মেলনে বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব রহুল কবির রিজভীর কান্না প্রসঙ্গে আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক হাছান বলেন, কারো আবেগ নিয়ে কথা বলতে চাই না। তাদের দলের নেত্রীর জন্য কান্না করতেই পারেন। তবে ওই দলের নেত্রীর নির্দেশে যখন দেশব্যাপী পেট্রলবোমা মেরে মানুষ হত্যা করা হলো, হাজার হাজার মানুষকে দগ্ধ করা হলো-তখন তো তারা কান্না করেনি? বরং তাদের মুখে হাসি ছিল। তারা জনগণের জন্য কান্না করে না। খালেদা জিয়াও জনগণের জন্য কাঁদে না। তিনি দুর্নীতিবাজ পুত্রের সাজার সময়, নিজের বাড়ি হারানোর সময় কান্না করেন। পেট্রলবোমা হামলার জন্য খালেদা জিয়ার নামেও মামলা চালু করার দাবি করেন তিনি।

লন্ডনে বাংলাদেশ দূতাবাসে হামলার প্রসঙ্গে আওয়ামী লীগের এ নেতা বলেন, লন্ডন দূতাবাস আওয়ামী লীগের সম্পদ নয়, দেশের সম্পদ, জনগণের সম্পদ। সেখানে হামলা চালিয়ে বঙ্গবন্ধুর ছবি ভাঙচুর করেছে। যারা জাতির জনককে সম্মান দেখাতে জানে না, তারা দুষ্কৃতকারী, সন্ত্রাসী।

বিএনপির গঠনতন্ত্রের ৭ ধারা সংশোধন প্রসঙ্গে হাছান মাহমুদ বলেন, দুর্নীতিবাজদের দলে ঠাঁই দিতেই গঠনতন্ত্রে সংশোধন এনেছে। এখন দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান করা হয়েছে আন্তর্জাতিক দুর্নীতিবাজ তারেক রহমানকে। বিএনপি শুধু দুষ্কৃতকারীর দলই না, গণবিরোধী ও দুর্নীতিবাজদের প্লাটফরম। বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটের উপদেষ্টা লায়ন চিত্ত রঞ্জন দাসের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন, সাবেক উপমন্ত্রী ও জাতীয় পার্টি-জেপির অতিরিক্ত মহাসচিব সাদেক সিদ্দিকী, ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-নুরুল আমিন রুহুল, খোকসা পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান বিটু, বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটের সাধারণ সম্পাদক অরুন সরকার রানা, ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের সদস্য মিনহাজ উদ্দিন মিন্টু, রোকন উদ্দিন পাঠান প্রমুখ।