করাচিতে হবে পাকিস্তান-ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজ

ক্রিকেট
Typography
  • Smaller Small Medium Big Bigger
  • Default Helvetica Segoe Georgia Times

করাচিতে হবে পাকিস্তান-ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজ

অনলাইন ডেস্ক: আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ফেরানোর আরও একটি ধাপ অতিক্রম করতে যাচ্ছে পাকিস্তান। পাকিস্তান সুপার লিগের ফাইনাল, বিশ্ব একাদশের বিপক্ষে তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ এবং শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে একটি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ আয়োজনের মধ্য দিয়ে গত বছর আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ফেরানোর প্রথম ধাপ অতিক্রম করেছিল পাকিস্তান। তবে এই প্রথম ধাপের সবগুলো ম্যাচই অনুষ্ঠিত হয়েছিল লাহোরের গাদ্দাফি স্টেডিয়ামে।

এবার দ্বিতীয় ধাপে ভিন্ন ভেন্যু নির্বাচন করেছে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি)। করাচি ন্যাশনাল স্টেডিয়াম। এখানেই অনুষ্ঠিত হবে এবারের পিএসএলের ফাইনাল। আরব আমিরাতের মাটিতে পুরো টুর্নামেন্ট শেষ করে আনলেও এবার করাচিকেই ফাইনালের জন্য বেছে নিয়েছে পিসিবি।

পিসিবি চেয়ারম্যান নাজম শেঠি নতুন খবর শোনালেন পাকিস্তান ক্রিকেটপ্রেমীদের। শুধু পিএসএল ফাইনালই নয়, এপ্রিলেই পাকিস্তান সফরে আসবে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলার জন্য সফরে আসবে ক্যারিবীয় ক্রিকেটাররা। সিরিজের তিন ম্যাচের প্রতিটিই অনুষ্ঠিত হবে করাচিতে।

২০০৯ সালে শ্রীলঙ্কান ক্রিকেটারদের ওপর হামলার পর পাকিস্তান থেকেই নির্বাসনে চলে যায় আন্তর্জাতিক ক্রিকেট। সে থেকে করাচি বঞ্চিত আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে। এরপর থেকে পাকিস্তান তাদের সবগুলো হোম ম্যাচই খেলেছে বলতে গেলে কাছাকাছি ভেন্যু আরব আমিরাতে।

তবে ২০১৫ সাল থেকে বলতে গেলে পাকিস্তানে বিদেশি দলগুলো আসতে শুরু করে। জিম্বাবুয়ে, পিএসএল ফাইনাল, বিশ্ব একাদশের সিরিজ এবং সর্বশেষ শ্রীলঙ্কা। সবগুলো ম্যাচই হয়েছে লাহোরে। এবার করাচিকেও বিশ্বের সামনে উন্মুক্ত করতে চলেছে পিসিবি।

নাজম শেঠি বলেন, ‘দিন-রাত পরিশ্রম করে যাচ্ছি। ওয়েস্ট ইন্ডিজের সঙ্গে একটি চুক্তি সম্পাদনের জন্য। যেটা আমি এক ঘণ্টা আগে সম্পাদন করেছি। সুখবর হচ্ছে, ওয়েস্ট ইন্ডিজ রাজি হয়েছে, তারা পাকিস্তানে এসে তিনটি ম্যাচ খেলবে। যে ম্যাচগুলো অনুষ্ঠিত হবে করাচিতে, এপ্রিলের ১, ২ এবং ৪ তারিখ। ওয়েস্ট ইন্ডিজ লাহোরে খেলতে রাজি নয়। করাচিতে খেলতে রাজি। এটা আমাদের জন্য ভালোই হয়েছে। কারণ, আমরা চাই করাচিকে ক্রিকেটের মানচিত্রে আবারও ফিরিয়ে আনতে। পিএসএল ফাইনাল এবং এখন তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে এখানে। করাচির ক্রিকেটপ্রেমী মানুষও আশাকরি একে স্বাগত জানাবে।’