ঐশ্বরিয়াকে শারীরিক নির্যাতন করেছিলেন সালমান!

বিনোদন
Typography
  • Smaller Small Medium Big Bigger
  • Default Helvetica Segoe Georgia Times

ঐশ্বরিয়াকে শারীরিক নির্যাতন করেছিলেন সালমান!


বলিউড পাড়ায় সালমান-ঐশ্বরিয়ার প্রেমকাহিনী নিয়ে বিভিন্ন সময় আলোচনা হয়েছে। ১৯৯৯ সালে ‘হাম দিল দে চুকে সনম’ ছবির শুটিংয়ের সময় থেকেই তাদের প্রেম শুরু। ২০০২ সালে এসে তাদের সেই প্রেম ভেঙে যায়।

প্রেমকালীন সময়ে নানা অভিজ্ঞতার মধ্য দিয়ে যেতে হয়েছে ঐশ্বরিয়াকে। প্রেম ভেঙে যাবার পর ঐশ্বরিয়া জানিয়েছিলেন, সালমান তাকে শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন করতো। সালমানের মারের দাগ এখনও তার শরীর থেকে মুছে যায়নি। ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম সূত্রে এমন তথ্য জানা যায়।

২০০১ সাল থেকেই সালমান থেকে দূরে সরে যেতে থাকেন ঐশ্বরিয়া। সেই সময়ের ঘটনার বর্ণনা দিতে গিয়ে ঐশ্বরিয়া বলেছিলেন, ‘একদিন রাতে সালমান এসে বাসার দরজায় কড়া নাড়ে, দরজা না খোলার কারণে সেখানে রাত ৩টা পর্যন্ত চিৎকার-চেঁচামেচি করেন। পরে আশেপাশে সবাই পরিস্থিতি শান্ত করেন।

ঐশ্বরিয়া বলেন, মূলত আত্মসম্মান বাঁচাতেই সালমানের সঙ্গে তিনি সম্পর্ক ভেঙে দিয়েছিলেন। সালমানের সঙ্গে তার সম্পর্ক যেন দুঃস্বপ্নের মতো ছিল। ওই সম্পর্কের ইতি টানতে পেরেছেন বলে তিনি খুশি।

সাবেক বিশ্বসুন্দরী ঐশ্বরিয়া রায় সিনেমা ক্যারিয়ারের শুরুর দিকেই প্রেমে জড়ান সালমানের সঙ্গে। পরবর্তীতে অভিষেক বচ্চনকে বিয়ে করেন ঐশ্বরিয়া। বর্তমানে অভিষেক-ঐশ্বরিয়া দম্পতির ঘরে আরাধ্য নামে এক কন্যা সন্তান রয়েছে।