প্রিয়ার পাশেই সুপ্রিম কোর্ট, আপাতত মিলল স্বস্তি

বিনোদন
Typography
  • Smaller Small Medium Big Bigger
  • Default Helvetica Segoe Georgia Times

প্রিয়ার পাশেই সুপ্রিম কোর্ট, আপাতত মিলল স্বস্তি

ফিল্মি জীবন শুরুর আগেই ফেঁসে গিয়েছিলেন আইনি ঝামেলায়। মুসলিম ভাবাবেগে আঘাত দেওয়ার অভিযোগে ফৌজদারি মামলা দায়ের হয়েছিল। তবে বুধবার সেই মামলায় খানিকটা স্বস্তি মিলল অভিনেত্রী প্রিয়া প্রকাশ বারিয়ারের। বুধবার সেই মামলায় স্থগিতাদেশ দিল সুপ্রিম কোর্ট।

এ দিন শীর্ষ আদালতের প্রধান বিচারপতি দীপক মিশ্রের নেতৃত্বধীন একটি বেঞ্চ জানিয়েছে, ওই মামলায় প্রিয়া-সহ ফিল্মের পরিচালক এবং প্রযোজকের বিরুদ্ধে কোনও রাজ্যই ব্যবস্থা নিতে পারবে না।

মালয়ালি ছবি ‘ওরু আদার লাভ’-এর একটি গানের সৌজন্যে আপাতত অনেকের হৃদয়েই ঝড় তুলেছেন প্রিয়া। ফিল্মের ‘মাণিক্য মালারায়া পুভি’-র গানের মাঝে অষ্টাদশী প্রিয়ার চোখের ভাষায় কথা হারিয়েছেন নায়ক রোশন আব্দুল রউফ। রউফের মতোই দশা প্রিয়ার অগুণতি ফ্যানের। রাতারাতি সোশ্যাল সেনসেশন হয়ে যান বি কম-এর ছাত্রীটি। প্রথম ফিল্ম পর্দায় আসার আগেই হ্যাশট্যাগ আর ট্রেন্ডিং লিস্টে জায়গা করে নেন।

তবে প্রিয়ার ওই গানের কথা নিয়ে আপত্তি তোলে মুসলিমদের কয়েকটি গোষ্ঠী। তাদের দাবি, ওই গানের মাধ্যমে মুসলিম ভাবাবেগে আঘাত দেওয়া হয়েছে। তা নিয়ে তেলঙ্গানার ফলকনুমা থানায় প্রিয়ার বিরুদ্ধে এফআইআর-ও করা হয়। বাদ যাননি ফিল্মের পরিচালক ওমর লুলু এবং প্রযোজক জোসেফ ভি ইয়াপেন। তাঁদের বিরুদ্ধেও একই সঙ্গে একাধিক মামলা রুজু করা হয়। এর পরই শীর্ষ আদালতের দ্বারস্থ হয়েছিলেন প্রিয়ারা।
আদালতের কাছে আবেদনে প্রিয়াদের আইনজীবী জানিয়েছেন, ‘মাণিক্য মালারায়া পুভি’ আসলে কেরলের একটি লোকগান। ১৯৭৮-এ তা লিখেছিলেন পিএমএ জব্বর। মুসলিম ভাবাবেগে আঘাত দেওয়ার অভিযোগ ভিত্তিহীন বলে দাবি করেছিলেন আবেদনকারীরা। এ দিন প্রিয়াদের সেই আবেদনেই সাড়া দিল শীর্ষ আদালত।