দর্শনার্থীদের আকর্ষণ শাওমি’র ইলেক্ট্রিক সাইকেলে

হার্ডওয়্যার
Typography
  • Smaller Small Medium Big Bigger
  • Default Helvetica Segoe Georgia Times

রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে (বিআইসিসি) চলছে স্মার্টফোন ও ট্যাব মেলা। মেলায় বিভিন্ন ব্র্যান্ডের নতুন নতুন সব স্মার্টফোন ও ট্যাবকে ছাড়িয়ে দর্শনার্থীদের আকর্ষণের কেন্দ্রে পরিণত হয়েছে চীনা কোম্পানি শাওমি’র ইলেক্ট্রিক সাইকেল ও স্কুটার। 

তিন দিনব্যাপী এ মেলার দ্বিতীয় দিন শুক্রবার (১২ জানুয়ারি) ছুটির দিনে মেলা প্রাঙ্গণে দর্শনার্থীদের উপচেপড়া ভিড় দেখা গেছে।
 
এসব দর্শনার্থীরা পছন্দের ব্র্যান্ডের মোবাইল ফোন বা ট্যাব পরখ করতে আসলেও শাওমির ইলেক্ট্রিক সাইকেল ও স্কুটার কারো নজর এড়াতে পারেনি।
 
জানা গেছে, শাওমি ২০১৭ সালে বাংলাদেশের বাজারে একটি দৃষ্টিনন্দন ইলেকট্রিক স্কুটার নিয়ে আসে। যা স্মার্টফোন ও ট্যাব মেলায় শাওমির স্টলে নিয়ে আসা হয়েছে।
 
একইসঙ্গে একটি ইলেকট্রিক সাইকেলও নিয়ে এসেছেন বাংলাদেশের বাজারে স্মার্টফোনের জনপ্রিয় এ নির্মাতা প্রতিষ্ঠান। আধুনিক এবং দৃষ্টিনন্দন এ বাহন দু’টিতে এক পলক চোখ বুলিয়ে নিতে সবাই ভিড় জমাচ্ছেন শাওমির স্টলে।
 
৭৪ হাজার ৯শ’ ৯০ টাকা মূল্যের ইলেকট্রিক সাইকেলটি চার্জ এবং প্যাডেল উভয় মাধ্যমেই চলবে। ‘এমআই কাই সাইকেল’ মডেলের এ বাহনটি একবার চার্জ দিলে টানা ৪৫ কি.মি. চালানো যাবে।
 
এছাড়া ঘণ্টায় সর্বোচ্চ ৩০ কি.মি বেগে চলতে সক্ষম এ সাইকেলে রয়েছে জিপিএস ডিভাইস, যার মাধ্যমে সাইকেলের লোকেশন মনিটর করা যাবে। স্পিড মিটারের মাধ্যমে চালকের হার্টবিট, সাইকেলের গতিবেগও মনিটর করা যাবে। মেলা উপলক্ষে পণ্যটিতে ১০ শতাংশ মূল্য ছাড় দেওয়া হয়েছে।
 
একইভাবে সর্বোচ্চ ১০০ কেজি ওজন বহন করতে সক্ষম ইলেকট্রিক স্কুটার ‘এমআই স্কুটার’ এর মূল্য ধরা হয়েছে ৬৪ হাজার ৯শ’ ৯০ টাকা। চালক পা দিয়ে একটু ধাক্কা দিলেই স্বয়ংক্রিয়ভাবে চলতে শুরু করবে এ স্কুটার। এজন্য ছোট-বড় সবাই স্কুটারটি চালাতে পারবেন।
 
ঘণ্টায় সর্বোচ্চ ২৫ কি. মি. বেগে ছুটতে সক্ষম এ স্কুটারে চারটি গিয়ার যুক্ত করা হয়েছে গতি কমানো-বাড়ানোর জন্য। রয়েছে হাইড্রোলিক ব্রেকও।

Sign up via our free email subscription service to receive notifications when new information is available.